আজ ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ভারতে মহানবী (সাঃ)কে অবমাননার প্রতিবাদে বড়লেখায় তাওহীদি জনতার বিক্ষোভ মিছিল

বিশেষ প্রতিনিধিঃ মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) ও উম্মুল মুমিনিন আয়েশা (রাঃ)কে নিয়ে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির মুখপাত্র নূপুর শর্মাসহ দুই নেতার চরম অবমাননাকর মন্তব্যের প্রতিবাদে মৌলভীবাজারের বড়লেখায় তাওহীদি জনতার উদ্যোগে এক বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (১০ জুন) জুম্মার নামাজের পর বড়লেখা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গণ থেকে মিছিল বের হয়ে পৌর শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পূনরায় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সম্মূখে (তৎকালীন শিরীষতলা) প্রতিবাদ সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশে বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দসহ উপজেলার সকল মসজিদের হাজার হাজার তাওহিদী জনতা অংশগ্রহণ করে।

বড়লেখা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মুফতি রুহুল আমিনের সভাপতিত্বে ও সাবেক ইউপি সদস্য ফয়ছল আলম স্বপনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এমাদুল ইসলাম, খেলাফত মজলিসের উপজেলা সভাপতি কাজী মাওলানা এনামুল হক, ইয়াকুবনগর জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মনোয়ার হোসেন মাহমুদী, ডাকবাংলো জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আব্দুল্লাহ খান, সাংবাদিক এম.এম আতিকুর রহমান, মাওলানা আবুল হাসান হাদী, উত্তর চৌমুহনী জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মাহমুদুল হাসান, থানা জামে মসজিদের খতিব মাওলানা ইয়াহইয়া আহমদ, মাওলানা আবিদুর রহমান, হাফিজ মাওলানা ছাদিক আহমদ, সাবেক ছাত্রনেতা ব্যবসায়ী আব্দুল কাদির পলাশ, ছাত্রনেতা বাকের আহমদসহ অন্যান্য পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

এসময় বক্তারা বলেন, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহা-মানব,যার শান ও মান আকাশচুম্বী, যার চরিত্র সমগ্র পৃথিবীর সকল মানুষের জন্য আদর্শ, স্বয়ং আল্লাহ তায়ালা তাঁর চরিত্র সম্পর্কে সার্টিফিকেট দিয়েছেন। তাঁর এমন মহান চরিত্রের উপর অবমাননাকর বক্তব্য যে সকল কুলাঙ্গাররা প্রদান করেছে তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানিয়ে তারা বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রীয় ভাবে নিন্দা প্রকাশ করার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান।

এছাড়া বক্তারা আরও বলেন, বড়লেখা সরকারি কলেজের ইংরেজী প্রভাষক দিগেন্দ্র দেবনাথ মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ) কে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে বাজে মন্তব্যর কারণে ২৪ ঘন্টার মধ্যে কলেজ থেকে বহিষ্কার করে আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা নিশ্চিত করার জন্য প্রশাসনের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এবং তাঁর পাশাপাশি কিংশু ঘোষ ও ফাহাদকে আইনের আওতায় আনার জন্য বড়লেখা প্রশাসনের প্রতি বক্তারা আকুল আবেদন জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ জাতীয় আরও খবর