আজ ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

প্রকৃতির অ্যাকশন থেকে বাঁচতে হলে প্রকৃতিকে সংরক্ষণ করতে হবে: পরিবেশমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদকঃপরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন এমপি বলেছেন, ‘জলবায়ুর পরির্তন মোকাবেলায় বেশি করে গাছ লাগাতে হবে। তাহলেই আমরা আমাদের পরিবেশকে রক্ষা করতে পারব। রক্ষা পাব জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রতিক্রিয়া থেকে। বাংলাদেশকে সবুজায়ন করতে পরিকল্পনা করে বিভিন্ন জায়গায় সরকারিভাবে গাছ লাগানো হচ্ছে। পাশাপাশি জলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাত থেকে দেশকে বাঁচাতেও বিভিন্ন রকমের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।’
মন্ত্রী বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) মৌলভীবাজারের বড়লেখায় বৃক্ষরোপণ অভিযান ও বৃক্ষমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বড়লেখা উপজেলা প্রশাসন ও বন বিভাগের বড়লেখা রেঞ্জ কার্যালয়।
মন্ত্রী সেখানে শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের মাঝে ১ হাজার বনজ, ফলজ এবং ঔষুধি গাছের চারা বিতরণ, সুফল প্রকল্পের অর্থায়নে কমিউনিটি ডেভলাপমেন্ট ফান্ডের আওতায় ৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৩০টি ফ্যান বিতরণ এবং সুফল প্রকল্পের আওতায় বন নির্ভরশীল জনগোষ্ঠীর ১০ জন সদস্যকে ২০ হাজার টাকা করে মোট ২ লাখ টাকা ঋণ বিতরণ করেন।
মন্ত্রী বলেন, ‘এই দেশ আমাদের। আমাদের পরিবেশ আমাদেরই রক্ষা করতে হবে। সকলকে অনুরোধ করছি বন ও পাহাড় রক্ষা করুন। এতে আমরা উপকৃত হব। পরিবেশও রক্ষা করতে পারব। পরিবেশকে রক্ষার জন্য শুধু বন না; আমাদের নদী, নালা ও খাল ভরাট বন্ধ করতে হবে। যাতে দ্রæত সময়ে বৃষ্টির পানি নিষ্কাশন হয়। না হলে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়ে অকাল বন্যা দেখা দেবে। মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হবে।’
পরিবেশমন্ত্রী বলেছেন, ‘আমরা অনুরোধ করি টিলা না কাটতে। তারপরও অনেকে টিলা কেটে ঘর-বাড়ি বানান। কিন্তু ঠিলা যখন অ্যাকশন নেয়, চাপা দেয় তখন আপনি ঘুমে থাকেন। আপনি বুঝতেও পারেন না টিলা যে অ্যাকশন নিচ্ছে। তাকে যেভাবে কাটছেন সেও চাপা দিয়ে অ্যাকশন নিচ্ছে।
‘টিলা কাটার চেয়ে আরও মারাত্মক, আপনি শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে পারছেন না। ঘরের মধ্যেই মারা যাচ্ছেন। এমন অনেক ঘটনা তো ঘটছেই। তাই প্রকৃতির অ্যাকশন থেকে বাঁচতে হলে আমাদেরকে প্রকৃতিকে সংরক্ষণ করতে হবে। পরিবেশ-প্রতিবেশকে রক্ষা করতে হবে।’
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বড়লেখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) খন্দকার মুদাচ্ছির বিন আলী।
বড়লেখা উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ তাজ উদ্দিনের সঞ্চালনায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. তৌফিকুল ইসলাম, ডা. প্রণয় কুমার দে, বড়লেখা উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম সুন্দর, অধ্যক্ষ এ কে এম হেলাল উদ্দিন, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ, এপিপি গোপাল দত্ত, ইউপি চেয়ারম্যান এনাম উদ্দিন, বৃক্ষবন্ধু নার্সারির স্বত্তাধিকারী সোনাহর আলী প্রমুখ।
মন্ত্রী এর আগে বড়লেখা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে পৃথক অনুষ্ঠানে ২ হাজার জন কৃষকের মাঝে ৫ কেজি করে আমন বীজ ও ২০ কেজি করে রাসায়নিক সার বিতরণ এবং মুজিব বর্ষে প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্প আশ্রয়ণ-২ এর আওতায় ৩য় পর্যায়ের ২য় ধাপে উপজেলার ১০ জন গৃহহীন ও ভূমিহীন পরিবারের হাতে ঘরের চাবি এবং দলিল তুলে দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ জাতীয় আরও খবর