নিজেস্ব প্রতিবেদক: দুটি পাতা একটি কুড়ির দেশ কিংবা চায়ের দেশ খ্যাত মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলার ৩নং নিজ বাহাদুরপুর ইউনিয়নের গল্লাসাংগন গ্রামে স্টেডিয়ামের ভিত্তি পস্থর স্থাপন করলেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মো: আশরাফুল ও সিলেটের জনপ্রিয় নাট্যকার সাহেদ মোশারাফ খটাই মিয়া। গল্লাসাংগন গ্রামের প্রবাসীদের অর্থায়নে প্রায় তিন কোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিত হবে গল্লাসাংগন স্টেডিয়াম।
গল্লাসাংগন ফাউন্ডার্স মেম্বার্স এর তত্বাবধানে ও গল্লাসাংগন ক্রিকেট ক্লাবের সার্বিক সহযোগীয় গত ২জানুয়ারী গল্লাসাংগন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ভিত্তি পস্থর স্থাপন অনুষ্ঠানে গল্লাসাংগন গ্রামের প্রবিন মুরব্বি আব্দুস শুক্কুর সাহেবের সভাপতিত্বে ও তোফায়েল আহমেদ স্বপন ও কবির আহমদ লিটন এর যৌথ সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বড়লেখা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সুয়েব আহমদ,বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বড়লেখা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান চেয়ারম্যান মো: তাজ উদ্দিন, নিজ বাহাদুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ময়নুল হক মাষ্টার, সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছালেহ আহমদ জুয়েল, গল্লাসাংগন উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক রশিদ আহমদ খান, ক্রীড়া সংগঠক খায়রুল আলম নুনু, ফাউন্ডার্স মেম্বার্স হাবিবুর রহমান, সেলিম উদ্দিন, সালমান খান,ভূমি দাতা ফয়ছল আহমদ, ইউপি সদস্য হিফজুর রহমান, গল্লাসাংগন ক্রিকেট ক্লাবের সভাপতি রিপন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক আজাদ রহমান সহ প্রমুখ এসময় উপস্থিত ছিলেন ইউপি সদস্য রশিদ আহমদ, খছরুজ্জামান,শিক্ষক সাল্লাউদ্দিন মল্লিক,ক্রীড়া ধারাভাষ্যকার ইকবাল হোসেন,ক্রিকেটার ইমরান আহমদ, জুছেল আহমদ, রেদওয়ান রাহাত, শুভ, সাহেদ সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সহ সর্বস্থরের জনসাধারণ, এসময় উপস্থিত বক্তাগন গল্লাসাংগন গ্রামের প্রবাসীদের ভূয়সী প্রশংসা করেন, তারা এই একাকার প্রবাসীরা এত বড় কাজ হাতে নিয়েছেন আমরা তাদের কে ধন্যবাদ জানাই কৃতজ্ঞতা জানাই ইনশাআল্লাহ আমরা আমাদের অবস্থান থেকে সহযোগীতা করব, বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মো:আশরাফুল বলেন এই বড়লেখা থেকে এবাদত এর মত ক্রিকেটার তৈরী হয়েছে, সিলেটের খালেদ, আবু জায়েদ রাহি, তানিজম সাকিব এর মত প্রেস বোলার রয়েছে,আপনারা বলল্লে আমি এখানে এসে কোচিং করাব সপ্তাহে কিংবা মাসে।

By admin

its a news based portal and we always try to present true news and events what people right to know.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *